RU A unit (কলা অনুষদ)

RU A unit (কলা অনুষদ)

This entry is part 1 of 5 in the series RU UNIT REVIEW

  RU A unit (কলা অনুষদ)

05

September, 2018

Admission Test 2018

University of Rajshahi

RU A unit (কলা অনুষদ) এর আসন সংখ্যা, MCQ প্রশ্নের ধরণ, মানবন্টন ও নির্দেশনা নিম্নে দেয়া হলোঃ

Unit_A : কলা অনুষদ
বিভাগসমূহ (আসন সংখ্যা):
১.দর্শন(১১০)
২.ইতিহাস(১১০)
৩.ইংরেজি(১০০)
৪. বাংলা(১০০)
৫.ইসলামের ইতিহাস ও  সংস্কৃতি (১১০)
৬.ভাষা:উর্দু (৪০ )
সংস্কৃত (৫৬)
৭.আরবি (১১০), 
৮.ইসলামের স্টাডিজ(১১০), 
৯.নাট্যকলা (২৫), 
১০.সংগীত (৩০)
১১.ফারসি ভাষা ও সাহিত্য (৪০)

MCQ পরীক্ষা ১০০ মার্কের হবে। পাশ নম্বরঃ ৪০(নাট্যকলা ও সঙ্গীত বিভাগের পাশ নম্বর ৩০), সময়ঃ ১ ঘন্টা 
মানবন্টনঃ 
বাংলা – ৩০ নম্বর 
ইংরেজি- ৩০ নম্বর 
সাধারণ জ্ঞান- ৪০ নম্বর

বিভাগভিত্তিক শর্তাবলীঃ

১। দর্শন বিভাগঃ উচ্চমাধ্যমিকে যাদের ২০০ মার্কের যুক্তিবিদ্যা ছিল তাদের জন্য ৪০% সিট সংরক্ষিত থাকবে।

২। ইতিহাস বিভাগঃ যাদের সাধারণ ইতিহাস ছিল তাদের জন্য ৪৫ টি আসন বরাদ্দ থাকবে।

৩। ইংরেজি বিভাগঃ ইংরেজিতে ভর্তি হতে ইংরেজি অংশে সর্বোচ্চ নম্বর যারা পাবে তাদের ভেতর থেকে ১৫০০ জনের লিখিত পরীক্ষা নেয়া হবে। লিখিত পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের উপরেই মেধা তালিকা হবে।

৪। বাংলা বিভাগঃ উচ্চ মাধ্যমিকে ২০০ নম্বরের বাংলা পড়া থাকতে হবে। ৭৫% সিট মানবিকের জন্য সংরক্ষিত থাকবে। বাংলা অংশে ৩০ নাম্বারের ভেতর ১৫ পেতে হবে।

৫। ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে কোনো শর্ত নেই।

৬। ভাষা (উর্দু, ফার্সী,সংস্কৃত) বিভাগে কোনো শর্ত নেই।

৭। ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগঃ ১১০টি আসনের ৯০% দাখিল/আলিম পাশ শিক্ষার্থীদের জন্য।

৮। নাট্যকলা বিভাগঃ এই বিভাগের ভর্তি হতে চাইলে MCQ এর ফলাফলে ৩০ পেলে, ফলাফল প্রকাশের ৩ থেকে ৭ দিনের ভেতর ১০০ মার্কের ব্যবহারিক পরিক্ষা হবে যার পাশ মার্ক ৪০ । যৌথ পরীক্ষার নাম্বারের ভিত্তিতে মেধাতালিকা করা হবে।

৯। সঙ্গীত বিভাগঃ নাট্যকলা বিভাগের মতই শর্ত । এই বিভাগের ভর্তি হতে চাইলে MCQ এর ফলাফলে ৩০ পেলে, ফলাফল প্রকাশের ৩ থেকে ৭ দিনের ভেতর ১০০ মার্কের ব্যবহারিক পরিক্ষা হবে যার পাশ মার্ক ৪০ । যৌথ পরীক্ষার নাম্বারের ভিত্তিতে মেধাতালিকা করা হবে।

প্রস্তুতির ক্ষেত্রেঃ

মান বণ্টন অনুসারে প্রস্তুতি নেয়ার জন্য নতুন করে বলার কিছু নাই তবে শেষ সময়ে পারলে আগের সালের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নগুলো আর অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরিক্ষার প্রশ্নগুলো উত্তরসহ ব্যাখ্যা দেখলে উপকৃত হবেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার জন্য প্রাথমিকভাবে আবেদনের নিয়ম…..
১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান)/স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা ২০১৮-২০১৯

অনলাইনে প্রাথমিক আবেদনের নির্দেশিকা ।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে। ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান)/স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা ২০১৮-২০১৯ এর আবেদনের ক্ষেত্রে প্রার্থীকে
বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। আবেদনের পদ্ধতিসহ সকল বিস্তারিত তথ্য
admission.ru.ac.bd ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। নিম্নে বর্ণিত পদ্ধতি অনুসরন করে প্রাথমিক আবেদন করা যাবে।

১। যোগ্যতা যাচাই
ওয়েবসাইটের হোম পেজে “start Preliminary Application’ বাটনে ক্লিক করলে পরবর্তী পেজে প্রার্থীকে তার
SSC/সমমান এবং HSC/সমমান উভয় পরীক্ষার রোল, শিক্ষাবোর্ড ও পাশের বছর প্রদান করতে হবে। সেই সাথে পেজে প্রদত্ত একটি ছবিতে দৃশ্যমান সংখ্যা ও অক্ষর (Captcha) যথাস্থানে ইনপুট দিতে হবে।
কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শিক্ষাবোর্ডের স্থলে প্রযোজ্যক্ষেত্রে Technical-vocational অথবা Technical HBM/DIC (Diploma in commerce অথবা Business Management-এর ক্ষেত্রে), GCE (A লেভেল, ০ লেভেল) ও BFA এর শিক্ষার্থীরা বোর্ডের স্থলে others (GCE-A Level/BFA) সিলেক্ট করবে।
সকল তথ্য সঠিক ভাবে পূরণ করে “submit” বাটনে ক্লিক করলে প্রার্থীর মোবাইল নম্বর প্রদানের পেজ পাওয়া যাবে। কোন আবেদনকারীর প্রয়োজনীয় তথ্যাদি শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক প্রদত্ত ডাটাবেসে না পাওয়া গেলে “Complain Box”-এর মাধ্যমে।
সংশ্লিষ্ট অভিযোগ (প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সহ) প্রদান করতে পারবে। প্রদানকৃত তথ্য পর্যবেক্ষন করে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হবে।।

২। প্রাথমিক আবেদন প্রক্রিয়া
(ক) মোবাইল নম্বর প্রদান এবং ভেরিফিকেশন।
আবেদন প্রক্রিয়ার শুরুতেই প্রার্থীর মোবাইল নম্বরটি নিশ্চিত করতে হবে। মোবাইল নম্বরটি অবশ্যই প্রার্থীর নিজের অথবা
অভিভাবকের হতে হবে । একই মোবাইল নম্বর একাধিক প্রার্থীর জন্য ব্যবহার করা যাবে না। প্রার্থীর ভর্তি সংক্রান্ত সকল।
প্রকার তথ্য প্রদানের জন্য প্রদত্ত নম্বরে যোগাযোগ করা হবে। মোবাইল নম্বর সতর্কতার সাথে প্রদান করা প্রয়োজন। ভুল।
নম্বর প্রদান করলে প্রার্থীর সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হবে না এবং এজন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না।
সঠিক মোবাইল নম্বর প্রদানের পর “submit”-এ ক্লিক করলে প্রদত্ত মোবাইল ফোনে চার ডিজিটের একটি PIN নম্বর
পাঠানো হবে। প্রাপ্ত PIN নম্বরটি নির্ধারিত বক্সে লিখে “verify PIN” এ ক্লিক করলে মোবাইল নম্বরটি নিশ্চিত হবে।
মোবাইল নম্বর ভুল হলে “Edit Mobile No.” লিংকে গিয়ে নম্বরটি সংশোধন করা যাবে।

(খ) প্ৰাথমিক আবেদনের ইউনিট সিলেকশন।
মোবাইল নম্বর নিশ্চিত করলে প্রার্থীর sSc/সমমান এবং Hsc/সমমান পরীক্ষার তথ্যসহ প্রাথমিক আবেদনযোগ্য
ইউনিটসমূহের তালিকা প্রদর্শিত হবে। সকল তথ্য সঠিকভাবে মিলিয়ে নিতে হবে। কোন প্রকার গরমিল পরিলক্ষিত হলে।
“Exit”-এ ক্লিক করে তা সংশোধন করে নিতে হবে। আবেদনকারী যে যে ইউনিটে প্রাথমিক আবেদন করতে ইছুক তাদের
পাশে টিক () চিহ্ন (আবেদনযোগ্য কোন ইউনিটে পরবর্তীতেও আবেদন করা যাবে) দিয়ে “submit”-এ ক্লিক দিতে হবে।
(গ) ছবি আপলোড
এই ধাপে আবেদনকারীকে সদ্য তোলা একটি 300400 পিক্সেল সাইজের স্পষ্ট (Studio quality) রঙ্গিন JPG ফরমেটের
ছবি আপলোড করতে হবে। ছবির ফাইল সাইজ কোন মতেই ১০০ কিলোবাইটের বেশি হতে পারবে না।
ছবির পেছনে এক রঙের হালকা ব্যাকগ্রাউন্ড থাকবে; ব্যাকগ্রাউন্ডে কোন গাছপালা, প্রাকৃতিক দৃশ্য ইত্যাদি গ্রহণযোগ্য হবে না।
স্কুল/কলেজের ড্রেস পরিহিত ছবি ব্যবহার করা যাবে না। উল্লেখ্য যে, আবেদনের সময় প্রদত্ত ছবিই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির
জন্য ব্যবহার করা হবে। সফটওয়্যারের সাহায্যে কোন রকম ইফেক্ট দেওয়া ছবি গ্রহনযোগ্য হবে না। প্রাথমিক আবেদনের
সময় ছবি সংক্রান্ত কোন সংশোধন করা যাবে না।
(ঘ) কোটার তথ্য প্রদান
সঠিকভাবে ছবি আপলোডের পর আবেদনকারীকে তার ঈঙ্গিত কোটা/কোটাসমূহ (সংশ্লিষ্ট কোটার সুবিধা নিতে আগ্রহী হলে)
সিলেক্ট করতে হবে। যে কোটায় আবেদন করতে ইছুক তার পাশে টিক চিহ্ন দিয়ে সংশ্লিষ্ট কাগজপত্রের স্ক্যান কপি (সর্বোচ্চ
২ মেগাবাইট) একটি মাত্র JPG/PDF ফাইলের মাধ্যমে আপলোড করতে হবে।
FF0-এর ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট মুক্তিযোদ্ধার সনদপত্র এবং প্রার্থীর সাথে সম্পর্ক প্রমানের প্রয়োজনীয় জন্মসনদ পত্র/পত্রসমূহ একটি
ফাইল JPG/PDF) -এর মাধ্যমে আপলোড করতে হবে। অন্যান্য কোটার ক্ষেত্রেও প্রয়োজনীয় প্ৰমাণপত্র আপলোড করতে।
হবে। সংগৃহীত সকল কাগজপত্র সংরক্ষণ করা হবে।
ভর্তি পরীক্ষা পরবর্তী সময়ে কোটার সংশ্লিষ্ট মল কাগজপত্র সহ প্ৰয়োজনীয় প্রমানাদি উপস্থাপনে ব্যর্থ হলে সকল প্রকার
ভর্তির সুযোগ বাতিল করা হবে।
(ঙ) আবেদনের তথ্য প্রদান সম্পন্নকরন।
প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সঠিকভাবে প্রদানের পর “Next” বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে পরবর্তী ধাপে আবেদনকারীর তথ্যাবলী প্রদর্শিত
হবে। কোন তথ্য ভুল থাকলে “Back” বাটনে ক্লিক করে পূর্ববর্তী ধাপে ফিরে গিয়ে তা সংশোধন করা যাবে।
“Submit Preliminary Application” বাটনে ক্লিক দিলে প্রার্থীর প্রাথমিক আবেদনের তথ্যাদি প্রদান সম্পন্ন হবে এবং
একটি পি পাওয়া যাবে। উক্ত স্লিপে আবেদনকারীর Application ID, Bill Number এবং ফি এর পরিমাণ (৫৫/ – টাকা)
মুদ্রিত থাকবে। ফ্লিপটির নিচের দিকে অবস্থিত “Download Payslip” বাটনে ক্লিক করে স্ক্রিপটি প্রিন্ট বা সংরক্ষণ (Save)
করা যাবে। এই ক্রিপে প্রদত্ত তথ্য পরবর্তীতে প্রয়োজন হবে। OK বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে প্রক্রিয়াটি সমাপ্ত হবে। প্রাপ্ত
Bill Number ব্যবহার করে মোবাইল ব্যাংকিং-এর মাধ্যমে ফি প্রদান করতে হবে।
প্রাথমিক আবেদনকারীদের Hsc/সমমান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি ইউনিটের জন্য অনধিক ৩২০০০
আবেদনকারী নির্বাচন করা হবে। নির্বাচিত প্রার্থীদেরকে ১৬/০৯/২০১৮ তারিখের পর নির্দিষ্ট সময় (পরবর্তীতে উল্লেখ করা হবে)
এর মধ্যে admission.ruacbd এর মাধ্যমে তার মূল (চুড়ান্ত) আবেদন সম্পন্ন করতে হবে।

৩। ফি প্রদান পদ্ধতি ও প্রাথমিক আবেদন নিশ্চিতকরণ।
স্লিপে প্রদত্ত Bill Number ব্যবহার করে ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকের মাধ্যমে প্রাথমিক আবেদনের ফি (সার্ভিস চার্জসহ
৫৫/- টাকা) নিম্নে উল্লেখিত পদ্ধতিতে প্রদান করার মাধ্যমে প্রাথমিক আবেদন নিশ্চিত (confirm) করতে হবে। সংশ্লিষ্ট ফি
প্রদান ব্যতিত আবেদন সম্পন্ন হবে না।
ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকের মাধ্যমে ফি প্রদান পদ্ধতিঃ
Step-1:
ডায়াল *322# ।
Step-2:
Step-3:
“1. Payment” অপশন সিলেক্ট করতে হবে।
“1. Bill Pay” অপশন সিলেক্ট করতে হবে।
“2. other” অপশন সিলেক্ট করতে হবে।
Step-4:
Step-5:
“Enter Payer Mobile No.” এর স্থলে প্রার্থীর মোবাইল নম্বর দিতে হবে।
Enter Biller ID. এর স্থলে ‘377’ টাইপ করতে হবে।
Step-6:
Step-7:
Enter Bill Number এর স্থলে অবশ্যই রূিপে প্রদত্ত Bill Number টি প্রদান করতে হবে।
Step-8:
Enter Amount এর স্থলে ক্লিপে প্রদত্ত সর্বমোট ফি এর পরিমাণ দিতে হবে।
Step-9:
Enter PIN এর স্থলে Customer এর ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং Account এর PIN নম্বর দিতে হবে।
Step-10: | Payment confirmation SMS আসবে। এই SMs থেকে Transaction ID (TxmID) সংরক্ষণ করতে হবে।
ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংক হতে ফি প্রদানের নিশ্চিতকরণ sMs পাওয়া যাবে এবং ফি প্রদানের পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে
সংশ্লিষ্ট আবেদনের তথ্য ওয়েবসাইটে আপডেট করা হবে।
৪। বিশেষ প্রার্থীদের আবেদন পদ্ধতি
GCE (A লেভেল, o লেভেল) । ও BFA এর আবেদনকারীদের ওয়েব সাইটের হোম পেজে
“start Preliminary Application” বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে পরবর্তী পেজে প্রবেশকরে পরীক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য
(বোর্ডের স্থলে others (GCE-A Level/BFA) সিলেক্ট করতে হবে) সহ Hsc ও SSC এর সমমান পরীক্ষার মাকসিটের
scan copy (প্রতিটির সাইজ অনুর্ধ 1MB) আপলোড করতে হবে। পরবর্তী ৭২ ঘন্টার মধ্যে আবেদনকারীর প্রদত্ত মোবাইল
ফোনে আবেদনের যোগ্যতার বিষয়টি অবহিত করা হবে। এরপর আবেদনকারীকে উপরে বর্ণিত (১) হতে (৩) নং পদ্ধতি
অনুসরন করে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে।
ভৰ্তি সংক্রান্ত তথ্যের জন্য ।

Email: ru_admission@ru.acbd
Helpline: 01703-499973, 01703499974, 01797234567
(০৩/০৯/২০১৮ হতে ১২/০৯/২০১৮ তারিখ প্রতিদিন সকাল ০৯:০০টা – রাত ০৯:০০টা)

Want new articles before they get published?
Subscribe to our Awesome Newsletter.

RU A unit (কলা অনুষদ)

RU B UNIT REVIEW

This entry is part 2 of 5 in the series RU UNIT REVIEW

  RU B unit

07
September, 2018
Admission Test 2018 University of Rajshahi

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় – বি ইউনিট

আসন্ন ভর্তিপরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি গ্রহণকারী বন্ধুরা কেমন আছেন?

কেমন চলছে আপনাদের আপনাদের শেষ সময়ের প্রস্তুতিসঠিকভাবে প্রস্তুতি গ্রহণের পাশাপাশি আপনি যে বিশ্ববিদ্যালয়ের যে ইউনিটে পরীক্ষা দিচ্ছেন তা সম্পর্কে জানাও খুবই জরুরি।

আপনাদের আমি এখন বাংলাদেশের অন্যতম বৃহত্তম বিশ্ববিদ্যালয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ইউনিট সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানাবো। আশাকরি আপনারা উপকৃত হবেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিপরীক্ষা ২০১৮১৯ এ ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ এবং ব্যবসায় প্রশাসন ইন্সটিউটের সমন্বয়ে গঠন করা হয়েছে বি ইউনিট। ৬টি বিভাগ এবং একটি ইন্সটিউটের সর্বোমোট ৫৬০টি সিটের জন্য ভর্তিযুদ্ধে লড়াই করবে শিক্ষার্থীরা।

বিভাগ ও ইনস্টিটিউট অনুসারে সিট সংখ্যা

>হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থা বিভাগ১১০টি(বাণিজ্য ১০০ এবং অবাণিজ্য ১০)

>ম্যানেজমেন্ট স্টাডীজ বিভাগ১০০টি(বাণিজ্য ৮৫ এবং অবাণিজ্য ১৫)

>মার্কেটিং বিভাগ১১০টি(বাণিজ্য ৮৫ এবং অবাণিজ্য ২৫)

>ফাইন্যান্স বিভাগ১০০টি(বাণিজ্য ৮৫ এবং অবাণিজ্য ১৫)

>ব্যাংকিং ও ইনস্যুরেন্স বিভাগ৬০টি(বাণিজ্য ৫০ এবং অবাণিজ্য ১০)

>ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ৩০টি(বাণিজ্য ২৫ এবং অবাণিজ্য ৫)

>ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট(আইবিএ)= ৫০টি(বাণিজ্য ২৫ এবং অবাণিজ্য ২৫)

ন্যুনতম যোগ্যতা হিসেবে বানিজ্য শাখা থেকে উত্তীণ আবেদনকারীদের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায়৪র্থ বিষয়সহন্যূনতম জিপিএ ৩.৫ সহ মোট জিপিএ ৭.৫ পেতে হবে। বিজ্ঞান ও মানবিক শাখার আবেদনকারীর জন্য যথাক্রমে মোট জিপিএ ৮.০০ ও ৭.০০ পেতে হবে। অন্যদিকে জিসিই ০ লেভেল পরীক্ষায় ৫টি বিষয়ে এবং এ লেভেল পরীক্ষায় অন্ততঃ ২টি বিষয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে এবং উভয় লেভেলে মোট ৭টি বিষয়ের মধ্যে ৪টি বিষয়ে কমপক্ষে বি গ্রেড এবং ৩টি বিষয়ে কমপক্ষে সি গ্রেড পেতে হবে। ও লেভেল এ লেভেল এবং ইংলিশ ভার্সন(ন্যাশনাল কারিকুলামপরীক্ষায় উত্তীর্ণ আবেদনকারীদের প্রশ্ন প্রযোজ্য ক্ষেত্রে ইংলিশে অনুবাদ করা হবে। ইংরেজি প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের তার এ্যাপ্লিকেশন আইডি ও মোবাইল নম্বর উল্লেখসহ ১২০৯২০১৮ তারিখের মধ্যে ইমেইল(ru_admission@ru.ac.bdএর মাধ্যমে জানাতে হবে।

এবার আসি ভর্তিযুদ্ধের বিষয় সমূহ এবং মানবন্টন নিয়ে

>বাণিজ্য গ্রুপের পরীক্ষার্থীদের জন্য– ইংরেজি(৩০), ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা(৩০),হিসাববিজ্ঞান(৩০), আইসিটি(১০)

>অবাণিজ্য গ্রুপের শিক্ষার্থীদের জন্য– বাংলা(৩০), ইংরেজি(৩০), সাধারণ গণিত ও সাধারণ জ্ঞান(৩০),আইসিটি(১০)

বি.দ্র.- ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট(আইবিএ)-তে ভর্তির জন্য ইংরেজি বিষয়ে ভর্তিপরীক্ষায় ৪০অর্থাৎ ন্যূনতম ১২ নম্বর পেতে হবে।

বি ইউনিটে অংশগ্রহণকারীদের আবেদন ফি বাবদ ৬৬০+৬৬=৭২৬ টাকা ব্যয় করতে হবে।

অনলাইনে প্রাথমিকভাবে আবেদন করার জন্য যেবিষয় গুলোর দিকে নজর রাখা প্রয়োজন

যোগ্যতা যাচাই

ওয়েবসাইটের হোম পেজে “স্টার্ট প্রিলিমিনারী এ্যাপ্লিকেশন” বাটনে ক্লিক করলে পরবর্তী পেজে প্রার্থীকে তার এসএসসি/সমমান এবং এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষার রোলশিক্ষাবোর্ড ও পাশের বছর প্রদান করতে হবে। সেই সাথে পেজে প্রদত্ত একটি ছবির দৃশ্যতে সংখ্যা এবং অক্ষর যথাস্থানে ইনপুট দিতে হবে।

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে শিক্ষাবোর্ডের স্থলে প্রযোজ্যক্ষেত্রে টেকনিক্যালভকেশনাল অথবা টেকনিকালএইচ বিএএম/ডিআইসি (ডিপ্লোমা ইন কমার্স অথবা বিজনেস ম্যানেজমেন্ট এর ক্ষেত্রে),জিসিই(এ লেভেলও লেভেলও বিএফএ এর শিক্ষার্থীদের বোর্ডের স্থলে আদার্স(জিইসিএ লেভেল/বিএফএ)সিলেক্ট করবে।

সকল তথ্য সঠিকভাবে পুরণ করে “সাবমিট” বাটনে ক্লিক করলে প্রার্থীর মোবাইল নম্বর প্রদানের পেজ পাওয়া যাবে। কোনো আবেদনকারীর প্রয়োজনীয় তথ্যাদি শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক প্রদত্ত ডাটাবেসে না পাওয়া গেলে “কমপ্লেইন বক্স” এর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট অভিযোগ(প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সহপ্রদান করতে পারবে। প্রদানকৃত তথ্য পর্যবেক্ষন করে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হবে।

প্রাথমিক আবেদন প্রক্রিয়া

মোবাইল নম্বর প্রদান এবং ভেরিফিকেশন

আবেদন প্রক্রিয়ার শুরুতেই প্রার্থীর মোবাইল নম্বরটি নিশ্চিত করতে হবে। মোবাইল নম্বরটি অবশয়ই প্রার্থীর নিজের অথবা অভিভাবকের হতে হবে। একই মোবাইল নম্বর একাধিক প্রার্থীর জন্য ব্যবহার করা যাবে না।প্রার্থীর ভর্তি সংক্রান্ত সকল প্রকার তথ্য প্রদানের জন্য প্রদত্ত নম্বরে যোগাযোগ করা হবে। মোবাইল নম্বর সর্তকতার সাথে প্রদান করা প্রয়োজন। ভুল নম্বর প্রদান করলে প্রার্থীর সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হবে না এবং এজন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না।

সঠিক মোবাইল নম্বর প্রদানের পর “সাবমিট” এ ক্লিক করলে প্রদত্ত মোবাইল নম্বর ফোনে চার ডিজিটের একটি পিন নম্বর পাঠানো হবে। প্রাপ্ত পিন নম্বরটি নির্ধারিত বক্সে লিখে “ভেরিফাই পিন” এ ক্লিক করলে মোবাইল নম্বরটি নিশ্চিত হবে। মোবাইল নম্বর ভুল হলে সেক্ষেত্রে “এডিট মোবাইল নম্বর” লিংকে গিয়ে নম্বরটি সংশোধন করা যাবে।

প্রাথমিক আবেদনের ইউনিট সিলেকশন

মোবাইল নম্বর নিশ্চিত করলে প্রার্থীর এসএসসি/স্মমান এবং এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় তথ্যসহ প্রাথমিকভাবে আবেদনযোগ্য ইউনিটের তালিকা প্রদর্শিত হবে। সকল তথ্য সঠিকভাবে মিলিয়ে নিতে হবে। কোন প্রকার গরমিল পরিলক্ষিত হলে “এক্সিট” এ ক্লিক করে তা সংশোধন করে নিতে হবে। আবেদনকারী যে যে ইউনিটে প্রাথমিক আবেদন করতে ইচ্ছুক তাদের পাশে টিক চিহ্নআবেদনযোগ্য কোন ইউনিটে পরবর্তীতেও আবেদন করা যাবে)দিয়ে “সাবমিট” এ ক্লিক দিতে হবে।

ছবি আপলোড

এই ধাপে আবেদনকারীকে সদ্য তোলা একটি ৩০০*৪০০ পিক্সেল সাইজের স্পষ্ট(স্টুডিও কোয়ালিটিরঙিন জেপিজি ফরম্যাটের ছবি আপলোড করতে হবে। ছবির ফাইল সাইজ কোনো মতেই ১০০ কিলোবাইটের বেশি হতে পারবে না।

ছবির পেছনে এওক রঙের হালকা ব্যাকগ্রাউন্ড থাকবেব্যাকগ্রাউন্ডে কোনো গাছপালাপ্রকৃতিক দৃশ্য ইত্যাদি গ্রহনযোগ্য হবে না। স্কুল/কলেজের ড্রেস পরিহিত ছবি ব্যবহার করা যাবে না। উল্লেখ্য যেআবেদনের সময় প্রদত্ত ছবিই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির জন্য ব্যবহার করা হবে। সফটওয়্যারের সাহায্যে কোনো রকম ইফেক্ট দেওয়া ছবি গ্রহণযোগ্য হবে না। প্রাথমিক আবেদনের সময় ছবি সংক্রান্ত কোনো সংশোধন করা যাবে না।

কোটার তথ্য প্রদান

সঠিকভাবে ছবি আপলোডের পর আবেদনকারীকে তার কোটা/কোটাসমূহ(সংশ্লিষ্ট কোটার সুবিধা নিতে আগ্রহী হলেসিলেক্ট করতে হবে।

যে কোটায় আবেদন করতে ইছুক তার পাশে টিক চিহ্ন দিয়ে সংশ্লিষ্ট কাগজপত্রের স্ক্যান কপি (সর্বোচ্চ

২ মেগাবাইটএকটি মাত্র জেপিজে/পিডিএফ ফাইলের মাধ্যমে আপলোড করতে হবে। এফএফও ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট মুক্তিযোদ্ধার সনদপত্র এবং প্রার্থীর সাথে সম্পর্ক প্রমানের প্রয়োজনীয় জন্মসনদ পত্র/পত্রসমূহ একটি

ফাইল জেপিজে/পিডিএফ) –এর মাধ্যমে আপলোড করতে হবে। অন্যান্য কোটার ক্ষেত্রেও প্রয়োজনীয় প্ৰমাণপত্র আপলোড করতে।

হবে। সংগৃহীত সকল কাগজপত্র সংরক্ষণ করা হবে।

ভর্তি পরীক্ষা পরবর্তী সময়ে কোটার সংশ্লিষ্ট মল কাগজপত্র সহ প্ৰয়োজনীয় প্রমানাদি উপস্থাপনে ব্যর্থ হলে সকল প্রকার

ভর্তির সুযোগ বাতিল করা হবে।

আবেদনের তথ্য প্রদান সম্পন্নকরন।

প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সঠিকভাবে প্রদানের পর “নেক্সট” বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে পরবর্তী ধাপে আবেদনকারীর তথ্যাবলী প্রদর্শিত

হবে। কোন তথ্য ভুল থাকলে “ব্যাক” বাটনে ক্লিক করে পূর্ববর্তী ধাপে ফিরে গিয়ে তা সংশোধন করা যাবে।

সাবমিট প্রিলিমিনারী এ্যাপ্লিকেশনবাটনে ক্লিক দিলে প্রার্থীর প্রাথমিক আবেদনের তথ্যাদি প্রদান সম্পন্ন হবে এবং

একটি পি পাওয়া যাবে। উক্ত স্লিপে আবেদনকারীর এ্যাপ্লিকেশন আইডিবিল নম্বর এবং ফি এর পরিমাণ (৫৫/ – টাকা)

মুদ্রিত থাকবে। ফ্লিপটির নিচের দিকে অবস্থিত ডাউনলোড পে স্লিপবাটনে ক্লিক করে স্ক্রিপটি প্রিন্ট বা সংরক্ষণ (সেভ)

করা যাবে। এই ক্রিপে প্রদত্ত তথ্য পরবর্তীতে প্রয়োজন হবে। ওকে বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে প্রক্রিয়াটি সমাপ্ত হবে। প্রাপ্ত বিল নম্বর ব্যবহার করে মোবাইল ব্যাংকিংএর মাধ্যমে ফি প্রদান করতে হবে।

প্রাথমিক আবেদনকারীদের এইসসএসসি/সমমান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি ইউনিটের জন্য অনধিক ৩২০০০

আবেদনকারী নির্বাচন করা হবে। নির্বাচিত প্রার্থীদেরকে ১৬/০৯/২০১৮ তারিখের পর নির্দিষ্ট সময় (পরবর্তীতে উল্লেখ করা হবে)

এর মধ্যে admission.ru.ac.bd এর মাধ্যমে তার মূল (চুড়ান্তআবেদন সম্পন্ন করতে হবে।

ফি প্রদান পদ্ধতি ও প্রাথমিক আবেদন নিশ্চিতকরণ।

স্লিপে প্রদত্ত বিল নম্বর ব্যবহার করে ডাচবাংলা মোবাইল ব্যাংকের মাধ্যমে প্রাথমিক আবেদনের ফি (সার্ভিস চার্জসহ

৫৫/- টাকানিম্নে উল্লেখিত পদ্ধতিতে প্রদান করার মাধ্যমে প্রাথমিক আবেদন নিশ্চিত (কনফার্মকরতে হবে। সংশ্লিষ্ট ফি

প্রদান ব্যতিত আবেদন সম্পন্ন হবে না।

ডাচবাংলা মোবাইল ব্যাংকের মাধ্যমে ফি প্রদান পদ্ধতিঃ

স্টেপ-1:

ডায়াল *322# 

স্টেপ-2: “1. পেমেন্ট” অপশন সিলেক্ট করতে হবে।

স্টেপ-3:”1. বিল পে” অপশন সিলেক্ট করতে হবে।

স্টেপ-4: “2. আদার্স” অপশন সিলেক্ট করতে হবে।

স্টেপ-5:”এন্টার পেয়ার মোবাইল নম্বর” এর স্থলে প্রার্থীর মোবাইল নম্বর দিতে হবে।

স্টেপ-6: এন্টার বিলার আইডি এর স্থলে ‘377’ টাইপ করতে হবে।

স্টেপ-7:এন্টার বিল নম্বরের এর স্থলে অবশ্যই রূিপে প্রদত্ত বিল নম্বরটি প্রদান করতে হবে।

স্টেপ-8:এন্টার এ্যামাউন্ট এর স্থলে ক্লিপে প্রদত্ত সর্বমোট ফি এর পরিমাণ দিতে হবে।

স্টেপ-9:এটার পিন এর স্থলে কাস্টমারের এর ডাচবাংলা মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট এর পিন নম্বর দিতে হবে।

স্টেপ-10: | পেমেন্ট কনফারমেনশন এসএমএস আসবে। এই এসএমএস থেকে ট্রানজেকশন আইডি সংরক্ষণ করতে হবে।

ডাচবাংলা মোবাইল ব্যাংক হতে ফি প্রদানের নিশ্চিতকরণ এসএমএস পাওয়া যাবে এবং ফি প্রদানের পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে

সংশ্লিষ্ট আবেদনের তথ্য ওয়েবসাইটে আপডেট করা হবে।

বিশেষ প্রার্থীদের আবেদন পদ্ধতি

জিসিই (এ লেভেলও লেভেলও বিএফএ এর আবেদনকারীদের ওয়েব সাইটের হোম পেজে

স্টার্ট প্রিলিমিনারী এ্যাপ্লিকেশন” বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে পরবর্তী পেজে প্রবেশ করে পরীক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য

(বোর্ডের স্থলে আদার্সজিসিইএ লেভেল/বিএফএসিলেক্ট করতে হবেসহ এইচএসসি ও এসএসসি এর সমমান পরীক্ষার মাকসিটের

স্ক্যান কপি (প্রতিটির সাইজ অনুর্ধ 1এমবিআপলোড করতে হবে। পরবর্তী ৭২ ঘন্টার মধ্যে আবেদনকারীর প্রদত্ত মোবাইল

ফোনে আবেদনের যোগ্যতার বিষয়টি অবহিত করা হবে। এরপর আবেদনকারীকে উপরে বর্ণিত (হতে (নং পদ্ধতি

অনুসরন করে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে।

ভৰ্তি সংক্রান্ত তথ্যের জন্য ।

ইলেইলঃ ru_admission@ru.ac.bd

হেল্প লাইনঃ 01703-499973, 01703499974, 01797234567

(০৩/০৯/২০১৮ হতে ১২/০৯/২০১৮ তারিখ প্রতিদিন সকাল ০৯:০০টা – রাত ০৯:০০টা)

Want new articles before they get published? Subscribe to our Awesome Newsletter.

RU A unit (কলা অনুষদ)

RU C Unit Review

This entry is part 3 of 5 in the series RU UNIT REVIEW

  RU C unit 

05

September, 2018

Admission Test 2018

University of Rajshahi

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ইতোমধ্যেই তাদের ভর্তিসংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে! এবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি প্রক্রিয়ায় এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন! তো সেসব নিয়েই আজকের আয়জন ।
২০১৭ ও ২০১৮ সালের এইচএসসি/সমমান, ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স, বিএফএ(প্রাক), বাংলাদেশ কারিগরী শিক্ষা বোর্ডের
অধীনে এসএসসি (ভকেশনাল) ও এইচএসসি (ভকেশনাল), O লেভেল ও A লেভেল এবং অন্যান্য সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরাই এসএসসি বা এইচএসসি সমমান নির্ধারণ কমিটি কর্তৃক অনুমােদন সাপেক্ষে । কেবল ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবে। সনাতন পদ্ধতিতে ও উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারবে না। কেবল বিএফএ(প্রাক) ডিগ্রিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের ফলাফল এখনও সনাতন পদ্ধতিতে হওয়ায় তাদের আবেদন গ্রহণযােগ্য হবে, তবে তাদের মার্কশিট/সাটিফিকেট থাকতে হবে মানবিক শাখা থেকে উত্তীর্ণ আবেদনকারীদের এসএসসি/ সমমান ও এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ সহ মোট জিপিএ ৭.০০ পেতে হবে। বাণিজ্য শাখা থেকে উত্তীর্ণ আবেদনকারীদের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০ সহ মােট জিপিএ ৭.৫০ পেতে হবে । বিজ্ঞান শাখা থেকে উত্তীর্ণ আবেদনকারীদের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০ সহ মােট জিপিএ ৮.০০ পেতে হবে। জিসিই 0 লেভেল পরীক্ষায় ৫টি বিষয়ে এবং A লেভেল পরীক্ষায় অন্ততঃ ২টি বিষয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে এবং উভয় লেভেলে মােট ৭টি বিষয়ের মধ্যে ৪টি বিষয়ে কমপক্ষে B গ্রেড এবং ৩টি বিষয়ে কমপক্ষে C গ্রেড পেতে হবে। 0 লেভেল A লেভেল এবং ইংলিশ ভার্সন (ন্যাশনাল কারিকুলাম) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ আবেদনকারীদের প্রশ্ন প্রযােজ্য ক্ষেত্রে ইংরেজিতে অনুবাদ করা হবে। ইংরেজি প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক প্রার্থীকে তার Application ID ও মােবাইল নম্বর উল্লেখসহ ১২-০৯-২০১৮ তারিখের মধ্যে ইমেইল (ru_admission@ru.ac.bd) -এর মাধ্যমে জানাতে হবে।
Unit-C
বিজ্ঞান অনুষদ:
মোট ৬৬০ টি আসন
এর মধ্যে কেবল ১৬টি আসন (শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া
বিজ্ঞান বিভাগ) মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা
উভয় শাখার শিক্ষার্থীদের জন্য,বাকি আসন বিজ্ঞান
শাখার শিক্ষার্থীদের
প্রকৌশল অনুষদ :
মোট ২৭২ টি আসন,কেবল বিজ্ঞান শাখার
শিক্ষার্থীদের জন্য
বিজ্ঞান অনুষদ :
এটিও কেবল বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থীদের জন্য এবং মোট আসন ৩৭২ টি

এবারে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সি বা বিজ্ঞান ইউনিটে পরীক্ষা হবে নিম্নোক্ত বিষয়গুলিতে ভর্তির জন্য…
• গনিত
• পদার্থবিজ্ঞান
• রসায়ন
• পরিসংখ্যান
• প্রাণ রসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান
• ফার্মেসী
• পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেণ্ট
• ফলিত গণিত
• শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়াবিজ্ঞান
• ফলিত পদার্থ বিজ্ঞান ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং
• ফলিত রসায়ন ও রসায়ন প্রকৌশল
• কম্পিউটার সায়েন্স এণ্ড ইঞ্জিনিয়ারিং
• ইনফরমেশন এণ্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং
• ম্যাটেরিয়াল সায়েন্স এণ্ড ইঞ্জিনিয়ারিং
• ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং ।
তো এবার আসি আসল প্রসঙ্গে,পরীক্ষা হবে দুটি স্ট্রীমে…
(১) বিজ্ঞান স্ট্রীম
(২) অবিজ্ঞান স্ট্রীম ।
• বিজ্ঞান স্ট্রীমের পরীক্ষার্থীরা সকল বিষয়ের জন্যই পরীক্ষা দিতে পারবে,কিন্তু অবিজ্ঞান স্ট্রীমের পরীক্ষার্থীরা শুধুমাত্র শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়াবিজ্ঞান বিষয়ের জন্য বিবেচ্য হবে ।
বিজ্ঞান স্ট্রীম
পরীক্ষা সর্বমোট ১০০ নম্বরের হবে । পরীক্ষা কে দুইটি শাখায় ভাগ করা হয়েছে, আবশ্যিক এবং ঐচ্ছিক ।
আবশ্যিক শাখার মধ্যে রয়েছে
• পদার্থবিজ্ঞান – ৩০
• রসায়ন – ৩০
• গণিত – ২০
ঐচ্ছিক শাখার মধ্যে রয়েছে
• জীববিজ্ঞান – ২০
অথবা
• গণিত – ১০ + আই.সি.টি – ১০
যারা ঐচ্ছিক বিষয়ের মধ্যে গণিত ও আই সি টি বেছে নেবে তারা প্রাণ রসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান এবং ফার্মেসীঙ্গেই দুটি বিষয়ে ভর্তি হতে পারবে না ।
এবার আসি অবিজ্ঞান স্ট্রীমের কথায়…
অবিজ্ঞান স্ট্রীমের শিক্ষার্থীরা শুধুমাত্র শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়াবিজ্ঞানের জন্য বিবেচিত হবে এবং আসনসংখ্যা হলো ১৬…
অবিজ্ঞান স্ট্রীমের পরীক্ষা হবে তিনটি বিষয়ে, যথাক্রমে
• বাংলা – ৩০
• ইংরেজী – ৩০
• সাধারণ জ্ঞান – ৪০
বাংলায় ১২ এবং ইংরেজীতে ৭ নম্বর সহ নূন্যতম ৪০ নম্বর না পেলে সে শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অকৃতকার্য বলে বিবেচিত হবে ।
শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়াবিজ্ঞানে বিজ্ঞান ও অবিজ্ঞান উভয় বিভাগের শিক্ষার্থীরাই আবেদন করতে পারবে । ১০০ নম্বরের MCQ পরীক্ষার পর ব্যবহারিক পরীক্ষা হবে এবং তার পর চূড়ান্ত মেধাতালিকা দেওয়া হবে ।
ব্যবহারিক পরীক্ষা হবে ৩২ নম্বর এবং খেলাধূলায় জাতীয় সনদপত্রের জন্য রয়েছে ৮ নম্বর । BKSP এর সনদপত্রধারীদের ক্ষেত্রে পাশ নম্বর হবে ২৫ এবং তাদের জন্য থাকবে ২০% কোটা ।

আবেদন পদ্ধতি এবং পেমেণ্ট ডিটেইল
প্রাথমিক আবেদন প্রক্রিয়া :
মোবাইল নম্বর প্রদান এবং ভেরিফিকেশন আবেদন প্রক্রিয়ার শুরুতেই প্রার্থীর মোবাইল নম্বরটি নিশ্চিত করতে হবে। মোবাইল নম

্বরটি অবশয়ই প্রার্থীর নিজের অথবা অভিভাবকের হতে হবে। একই মোবাইল নম্বর একাধিক প্রার্থীর জন্য ব্যবহার করা যাবে না। প্রার্থীর ভর্তি সংক্রান্ত সকল প্রকার তথ্য প্রদানের জন্য প্রদত্ত নম্বরে যোগাযোগ করা হবে। মোবাইল নম্বর সর্তকতার সাথে প্রদান করা প্রয়োজন। ভুল নম্বর প্রদান করলে প্রার্থীর সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হবে না এবং এজন্য কর্তৃপক্ষ দায়ী থাকবে না। সঠিক মোবাইল নম্বর প্রদানের পর “সাবমিট” এ ক্লিক করলে প্রদত্ত মোবাইল নম্বর ফোনে চার ডিজিটের একটি পিন নম্বর পাঠানো হবে। প্রাপ্ত পিন নম্বরটি নির্ধারিত বক্সে লিখে “ভেরিফাই পিন” এ ক্লিক করলে মোবাইল নম্বরটি নিশ্চিত হবে। মোবাইল নম্বর ভুল হলে সেক্ষেত্রে “এডিট মোবাইল নম্বর” লিংকে গিয়ে নম্বরটি সংশোধন করা যাবে। প্রাথমিক আবেদনের ইউনিট সিলেকশন মোবাইল নম্বর নিশ্চিত করলে প্রার্থীর এসএসসি/স্মমান এবং এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় তথ্যসহ প্রাথমিকভাবে আবেদনযোগ্য ইউনিটের তালিকা প্রদর্শিত হবে। সকল তথ্য সঠিকভাবে মিলিয়ে নিতে হবে। কোন প্রকার গরমিল পরিলক্ষিত হলে “এক্সিট” এ ক্লিক করে তা সংশোধন করে নিতে হবে। আবেদনকারী যে যে ইউনিটে প্রাথমিক আবেদন করতে ইচ্ছুক তাদের পাশে টিক চিহ্ন( আবেদনযোগ্য কোন ইউনিটে পরবর্তীতেও আবেদন করা যাবে) দিয়ে “সাবমিট” এ ক্লিক দিতে হবে।ছবি আপলোড এই ধাপে আবেদনকারীকে সদ্য তোলা একটি ৩০০*৪০০ পিক্সেল সাইজের স্পষ্ট(স্টুডিও কোয়ালিটি) রঙিন জেপিজি ফরম্যাটের ছবি আপলোড করতে হবে। ছবির ফাইল সাইজ কোনো মতেই ১০০ কিলোবাইটের বেশি হতে পারবে না। ছবির পেছনে এওক রঙের হালকা ব্যাকগ্রাউন্ড থাকবে; ব্যাকগ্রাউন্ডে কোনো গাছপালা, প্রকৃতিক দৃশ্য ইত্যাদি গ্রহনযোগ্য হবে না। স্কুল/কলেজের ড্রেস পরিহিত ছবি ব্যবহার করা যাবে না। উল্লেখ্য যে, আবেদনের সময় প্রদত্ত ছবিই বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির জন্য ব্যবহার করা হবে। সফটওয়্যারের সাহায্যে কোনো রকম ইফেক্ট দেওয়া ছবি গ্রহণযোগ্য হবে না। প্রাথমিক আবেদনের সময় ছবি সংক্রান্ত কোনো সংশোধন করা যাবে না।  কোটার তথ্য প্রদান সঠিকভাবে ছবি আপলোডের পর আবেদনকারীকে তার কোটা/কোটাসমূহ(সংশ্লিষ্ট কোটার সুবিধা নিতে আগ্রহী হলে) সিলেক্ট করতে হবে। যে কোটায় আবেদন করতে ইছুক তার পাশে টিক চিহ্ন দিয়ে সংশ্লিষ্ট কাগজপত্রের স্ক্যান কপি (সর্বোচ্চ ২ মেগাবাইট) একটি মাত্র জেপিজে/পিডিএফ ফাইলের মাধ্যমে আপলোড করতে হবে। এফএফও ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট মুক্তিযোদ্ধার সনদপত্র এবং প্রার্থীর সাথে সম্পর্ক প্রমানের প্রয়োজনীয় জন্মসনদ পত্র/পত্রসমূহ একটি ফাইল জেপিজে/পিডিএফ) -এর মাধ্যমে আপলোড করতে হবে। অন্যান্য কোটার ক্ষেত্রেও প্রয়োজনীয় প্ৰমাণপত্র আপলোড করতে। হবে। সংগৃহীত সকল কাগজপত্র সংরক্ষণ করা হবে। ভর্তি পরীক্ষা পরবর্তী সময়ে কোটার সংশ্লিষ্ট মল কাগজপত্র সহ প্ৰয়োজনীয় প্রমানাদি উপস্থাপনে ব্যর্থ হলে সকল প্রকার ভর্তির সুযোগ বাতিল করা হবে । আবেদনের তথ্য প্রদান সম্পন্নকরন। প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সঠিকভাবে প্রদানের পর “নেক্সট” বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে পরবর্তী ধাপে আবেদনকারীর তথ্যাবলী প্রদর্শিত হবে। কোন তথ্য ভুল থাকলে “ব্যাক” বাটনে ক্লিক করে পূর্ববর্তী ধাপে ফিরে গিয়ে তা সংশোধন করা যাবে। “সাবমিট প্রিলিমিনারী এ্যাপ্লিকেশন) বাটনে ক্লিক দিলে প্রার্থীর প্রাথমিক আবেদনের তথ্যাদি প্রদান সম্পন্ন হবে এবং একটি পি পাওয়া যাবে। উক্ত স্লিপে আবেদনকারীর এ্যাপ্লিকেশন আইডি, বিল নম্বর এবং ফি এর পরিমাণ (৫৫/ – টাকা) মুদ্রিত থাকবে। ফ্লিপটির নিচের দিকে অবস্থিত “ডাউনলোড পে স্লিপ) বাটনে ক্লিক করে স্ক্রিপটি প্রিন্ট বা সংরক্ষণ (সেভ) করা যাবে। এই ক্রিপে প্রদত্ত তথ্য পরবর্তীতে প্রয়োজন হবে। ওকে বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে প্রক্রিয়াটি সমাপ্ত হবে। প্রাপ্ত বিল নম্বর ব্যবহার করে মোবাইল ব্যাংকিং-এর মাধ্যমে ফি প্রদান করতে হবে। প্রাথমিক আবেদনকারীদের এইসসএসসি/সমমান পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে প্রতিটি ইউনিটের জন্য অনধিক ৩২০০০ আবেদনকারী নির্বাচন করা হবে। নির্বাচিত প্রার্থীদেরকে ১৬/০৯/২০১৮ তারিখের পর নির্দিষ্ট সময় (পরবর্তীতে উল্লেখ করা হবে) এর মধ্যে admission.ru.ac.bd এর মাধ্যমে তার মূল (চুড়ান্ত) আবেদন সম্পন্ন করতে হবে ।

ফি প্রদান পদ্ধতি ও প্রাথমিক আবেদন নিশ্চিতকরণ :

স্লিপে প্রদত্ত বিল নম্বর ব্যবহার করে ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকের মাধ্যমে প্রাথমিক আবেদনের ফি (সার্ভিস চার্জসহ ৫৫/- টাকা) নিম্নে উল্লেখিত পদ্ধতিতে প্রদান করার মাধ্যমে প্রাথমিক আবেদন নিশ্চিত (কনফার্ম) করতে হবে। সংশ্লিষ্ট ফি প্রদান ব্যতিত আবেদন সম্পন্ন হবে না। ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকের মাধ্যমে ফি প্রদান পদ্ধতিঃ স্টেপ-1: ডায়াল *322# । স্টেপ-2: “1. পেমেন্ট” অপশন সিলেক্ট করতে হবে। স্টেপ-3:”1. বিল পে” অপশন সিলেক্ট করতে হবে। স্টেপ-4: “2. আদার্স” অপশন সিলেক্ট করতে হবে। স্টেপ-5:”এন্টার পেয়ার মোবাইল নম্বর” এর স্থলে প্রার্থীর মোবাইল নম্বর দিতে হবে। স্টেপ-6: এন্টার বিলার আইডি এর স্থলে ‘377’ টাইপ করতে হবে। স্টেপ-7:এন্টার বিল নম্বরের এর স্থলে অবশ্যই

রূিপে প্রদত্ত বিল নম্বরটি প্রদান করতে হবে। স্টেপ-8:এন্টার এ্যামাউন্ট এর স্থলে ক্লিপে প্রদত্ত সর্বমোট ফি এর পরিমাণ দিতে হবে। স্টেপ-9:এটার পিন এর স্থলে কাস্টমারের এর ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট এর পিন নম্বর দিতে হবে। স্টেপ-10: | পেমেন্ট কনফারমেনশন এসএমএস আসবে। এই এসএমএস থেকে ট্রানজেকশন আইডি সংরক্ষণ করতে হবে। ডাচ-বাংলা মোবাইল ব্যাংক হতে ফি প্রদানের নিশ্চিতকরণ এসএমএস পাওয়া যাবে এবং ফি প্রদানের পরবর্তী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সংশ্লিষ্ট আবেদনের তথ্য ওয়েবসাইটে আপডেট করা হবে। বিশেষ প্রার্থীদের আবেদন পদ্ধতি জিসিই (এ লেভেল, ও লেভেল) ও বিএফএ এর আবেদনকারীদের ওয়েব সাইটের হোম পেজে “স্টার্ট প্রিলিমিনারী এ্যাপ্লিকেশন” বাটনে ক্লিকের মাধ্যমে পরবর্তী পেজে প্রবেশ করে পরীক্ষা সংক্রান্ত সকল তথ্য (বোর্ডের স্থলে আদার্স( জিসিই-এ লেভেল/বিএফএ) সিলেক্ট করতে হবে) সহ এইচএসসি ও এসএসসি এর সমমান পরীক্ষার মাকসিটের স্ক্যান কপি (প্রতিটির সাইজ অনুর্ধ 1এমবি) আপলোড করতে হবে। পরবর্তী ৭২ ঘন্টার মধ্যে আবেদনকারীর প্রদত্ত মোবাইল ফোনে আবেদনের যোগ্যতার বিষয়টি অবহিত করা হবে। এরপর আবেদনকারীকে উপরে বর্ণিত (১) হতে (৩) নং পদ্ধতি অনুসরন করে আবেদন সম্পন্ন করতে হবে। ভৰ্তি সংক্রান্ত তথ্যের জন্য । ইমেইলঃ ru_admission@ru.ac.bd হেল্প লাইনঃ 01703-499973, 01703499974, 01797234567 (০৩/০৯/২০১৮ হতে ১২/০৯/২০১৮ তারিখ প্রতিদিন সকাল ০৯:০০টা – রাত ০৯:০০টা)…

F.A.Q

সেকেণ্ড টাইম কী আছে?
হ্যা আছে

জি পি এ এর ভিত্তিতে কী কোন নম্বর কাটা যায়?
না,যায় না ।

পরীক্ষা কী সব এম সি কিউ তে হবে?
হ্যা,কোনো লিখিত পরিক্ষা হবে না ।

সেকেণ্ড টাইমার দে কী কোনো কিছুতে নম্বর কাটা যাবে ?
না,যাবে না ।

Want new articles before they get published?
Subscribe to our Awesome Newsletter.

RU D Unit Review

This entry is part 4 of 5 in the series RU UNIT REVIEW

  RU D unit 

05

September, 2018

Admission Test 2018

University of Rajshahi

রাবি ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত( শুধুমাত্র D ইউনিটের ক্ষেত্রে)
(সাবজেক্টস+আসন সংখ্যা+মানবন্টণ+টিপস)

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতি ইউনিটে সর্বোচ্চ ৩২০০০ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করতে পারবে।

আগামী ৩ সেপ্টেম্বর আবেদন শুরু হয়েছে। ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই সেশনে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

১০০ মার্কসের MCQ পরীক্ষা হবে।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার পাশ নম্বর ৪০।
D ইউনিট (জীব ও ভু বিজ্ঞান অনুষদ + কৃষি অনুষদ):
১.উদ্ভিদ বিজ্ঞান(৮৮)
২.প্রাণিবিদ্যা(৮০)
৩.ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা(৭৬)
৪.চিকিৎসা মনোবিজ্ঞান (২৬)
৫.ভু তত্ব ও খনিবিদ্যা(৬০)
৬.জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি (৪০)
৭. মনোবিজ্ঞান (৬৬)

কৃষি অনুষদ –
৮.এগ্রোনোমি এন্ড এগ্রিকালচার এক্সটেনশন (৫৬)
৯.ফিসারিজ (৫০)
১০.এনিম্যাল হাজবেন্ডরি এন্ড ভেটেনারি সায়েন্স(৫০)
১১.ক্রপ সায়েন্স এন্ড
টেকনোলজি( ৫৬)

বিদ্র: প্রথম বন্ধনীর ভেতর প্রত্যেক বিভাগের সিট সংখ্যা দেওয়া হয়েছে।

D ইউনিটের উত্তর দিতে হবে-:
পদার্থ (২৫ মার্কস) ; রসায়ন (২৫ মার্কস) ;জীববিজ্ঞান (৫০ মার্কস)
কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস:
#জীববিজ্ঞান: এখানে প্রতিবছরই উদ্ভিদবিজ্ঞান অংশ থেকে বেশি প্রশ্ন আসে সেটা লক্ষ্য করা যায়। এর মধ্যে প্রথম দিকের অধ্যায় গুলো থেকে বেশি প্রশ্ন আসে। প্রানিবিজ্ঞান থেকে সাধারণত বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে যেসব প্রশ্ন আসে সেগুলোই বেশি আসতে দেখা যায়। এই ইউনিটে ভালো রেজাল্ট করতে হলে জীববিজ্ঞান অংশে অন্তত ৩৫-৪০ মার্কস পেতেই হবে।
#রসায়ন: সাধারণত জৈব রসায়ন থেকে ৩-৪ প্রশ্ন অবশ্যই আসে। এছাড়া ১ম ও ২য় পত্রের ২য়, ৩য়, ৪র্থ অধ্যায় গুলো অনেক থেকে বেশি প্রশ্ন আসে। ১ম ও ২য় পত্রের ১ম ও ৫ম অধ্যায় থেকে সর্বমোট ৪টি প্রশ্ন আসতে পারে।
#পদার্থবিজ্ঞান: ছোটখাটো প্রশ্নগুলো বেশি আসে। সহজ কিছু অংক আসতে দেখা যায়। ১ম ও ২য় পত্র থেকে সমানভাবে প্রশ্ন আসে। বৈশিষ্ট, উদাহরণ এগুলো ভালো করে পড়া উচিত।

Want new articles before they get published?
Subscribe to our Awesome Newsletter.

RU A unit (কলা অনুষদ)

RU E Unit Review

This entry is part 5 of 5 in the series RU UNIT REVIEW

  RU E unit 

07

September, 2018

Admission Test 2018

University of Rajshahi

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার E unit সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যসমূহ:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় এবার MCQ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।
পরীক্ষা হবে ১০০ মার্কের, যেখানে পাশ মার্ক হবে ৪০।
সময়: ১ ঘন্টা

E ইউনিটের বিষয়সমূহ:
E unit এ একটি ইন্সটিটিউট এবং দুইটি অনুষদকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।
আইন অনুষদ, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ এবং শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউট।
আইন অনুষদ :
১. আইন
২. আইন ও ভূমি প্রশাসন

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ:
১.অর্থনীতি
২. রাষ্ট্রবিজ্ঞান
৩. সমাজকর্ম
৪. সমাজবিজ্ঞান
৫. গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা
৬. ইনফর্মেশন সায়েন্স & লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট
৭. লোক প্রশাসন
৮. নৃবিজ্ঞান
৯. ফোকলোর
১০. আন্তর্জাতিক সম্পর্ক

শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউট :
১. শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউট

E unit ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীদের আবেদন ফি সর্বমোট ১১২২টাকা

E unit এর বিষয়গুলোর আসন সংখ্যা :
আইন- ১১০
আইন ও ভূমি প্রশাসন- ৫০

অর্থনীতি- ১১০
রাষ্ট্রবিজ্ঞান-১১০
সমাজকর্ম-৯০
সমাজবিজ্ঞান-১০০
গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা-৫০
ইনফর্মেশন সায়েন্স & লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট-৬৬
লোক প্রশাসন-৬০
নৃবিজ্ঞান-৫৬
ফোকলোর-৬৬
আন্তর্জাতিক সম্পর্ক-৪০

শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউট – ৫০

E unit এর মানবণ্টন:
বাংলা- ৩৫
ইংরেজী- ৪৫
সাধারণ জ্ঞান- ২০

অংশগ্রহণের ন্যূনতম যোগ্যতা:
বিজ্ঞান বিভাগ- ৮.০০ (৩.৫০+৩.৫০)
ব্যাবসায় বাণিজ্য- ৭.৫০ (৩.৫০+৩.৫০)
মানবিক (কলা)- ৭.০০ (৩.০০+৩.০০)

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি সংক্রান্ত সকল তথ্য জানতে ভিজিট করুন: admission.ru.ac.bd

Want new articles before they get published?
Subscribe to our Awesome Newsletter.